২৩শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ , ৮ই আশ্বিন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


প্রচ্ছদ আজকের খবর ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের উদ্যোগে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন
২৩ জুন, ২০২০ , ১৪:১৫ আপডেট: ২৩ জুন, ২০২০ ,১৪:১৫

মো: নাজমুল হুদা মানিক :

বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের উদ্দোগে ২৩ জুন সকাল ৮টায় নগরীর কালীবাড়ী রোডস্থ ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আত্মার শান্তি কামনা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা, দেশের উন্নতি ও মঙ্গল কামনা, করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়ার আশায় মহান আল্লাহতালার কাছে দোয়া করা হয়।

এসময় ময়মনসিংহ জেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক জননেতা এডভোকেট মো: মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল, সহসভাপতি এডভোকেট পীযুষ কান্তি সরকার, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক কাজী আজাদ জাহান শামীম, এম এ কুদ্দুছ, শওকত জাহান মুকুল, সাংগঠনিক সম্পাদক আহাম্মদ আলী আকন্দ, শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট আবু বকর সিদ্দিক, প্রচার সম্পাদক আহসান মোহাম্মদ আজাদ, স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক ডা: মমিনুর রহমান জিন্নাহ, সম্মানিত সদস্য এডভোকেট মো: ইমদাদুল হক সেলিম, ময়মনসিংহ জেলা কৃষকলীগের সভাপতি মো: আব্দুর রহিম মিন্টু, সাধারন সম্পাদক মো: গোলাম মোস্তফা ভিপি বাবুল, জেলা কৃষকলীগের সহসভাপতি মো: কামরুল ইসলাম, মহানগর কৃষকলীগের সহসভাপতি নুর আলী তালুকদার, মহিলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক স্বপ্না খন্দকার, জেলা শ্রমিকলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মো: নজরুল ইসলাম, সাংগঠনিক সম্পাদক মীর আব্দুল হাকিম মিন্টু, মো: আবু হানিফ, আওয়ামীলীগ নেতা সেলিম আলমগীর, যুবলীগ নেতা মো: আব্দুল আলীম সাগর, ছাত্রলীগ নেতা কবির প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সামাজিক নিরাপত্তা মেনে আওয়ামীলীগের ৭১তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে উপস্থিত সকলকে ধন্যবাদ জানান। এডভোকেট মো: মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল বলেন, আজ ঐতিহাসিক ২৩ শে জুন। আজকের দিনে উপমহাদেশের ঐতিহ্যবাহী প্রাচীনতম ও বৃহত্তম রাজনৈতিক সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর ৭১তম প্রতিষ্ঠা হয়ে ছিল। সংগ্রাম, উন্নয়ন ও অর্জনে আওয়ামী লীগের গৌরবদীপ্ত পথচলায় ৭০ বছর পেরিয়ে আজ ৭১ এ পদার্পণ। ১৯৪৯ সালের ২৩ জুন ঢাকার টিকাটুলির কে এম দাস লেনের কাজী হুমায়ন রশিদের বাসভবন ঐতিহাসিক রোজ গার্ডেনে আওয়ামী লীগ সৃষ্টির পর হতে দীর্ঘ ৭০ বছরের পথচলায় ৫০ বছরই দলটি রাষ্ট্রমতার বাইরে ছিল। ১৯৫২ এর ভাষা আন্দোলন, ৫৪ এর যুক্তফ্রন্ট নির্বাচন, ৬২ এর শিা আন্দোলন, ৬৬ এর ছয় দফা প্রণয়ন, ৬৯ এর গণঅভ্যুত্থান, ৭০ এর নির্বাচন সহ ১৯৭১ সালের মহান মুক্তিযুদ্ধ, সামরিক-স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলন তথা প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলনই আওয়ামী লীগের নেতৃত্বেই সংগঠিত হয়েছে। আওয়ামী লীগের কান্ডারী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বেই বাংলাদেশ মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে স্বাধীনতা লাভ করেছে। তিনি বলেন, আজকের এই ঐতিহাসিক দিনে আমরা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি আওয়ামী লীগের অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, জাতীয় চার নেতা, একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে ত্রিশ ল শহীদ,সম্ভ্রমহারানো দু’ল মা-বোন ও ৭৫ এর ১৫ আগষ্ট কালরাত্রিতে নিহত জাতির পিতার পরিবারবর্গ সহ সামরিক-স্বৈরাচারবিরোধী আন্দোলনে শহীদদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা জানাই। তিনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আতœার শান্তি কামনা, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার দীর্ঘায়ু কামনা, দেশের উন্নতি ও মঙ্গল কামনা, করোনা ভাইরাস থেকে মুক্তি পাওয়ার আশায় মহান আল্লাহতালার কাছে দোয়া করার জন্য সকলের প্রতি আহবান জানান। পরে দোয়া করা হয়। দোয়া পরিচালনা করেন জেলা আওয়ামীলীগের শ্রম বিষয়ক সম্পাদক এডভোকেট মো: আবু বকর সিদ্দিক।

মন্তব্য করুন: