১৬ই জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২রা মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ


প্রচ্ছদ রাজনীতি দেশের সার্বভৌমত্বকে বিক্রি করে দিয়েছে সরকার: রিজভী
২১ ডিসেম্বর, ২০২০ , ২১:৩৫ আপডেট: ২১ ডিসেম্বর, ২০২০ ,২১:৩৫

নিজস্ব প্রতিবেদক :

নতজানু সরকার ক্ষমতায় থাকলে দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব থাকে না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। তিনি বলেছেন, এমন একটি সরকারের অধীনে দেশের জনগণ বসবাস করছে, যেখানে তারা দেশের স্বাধীনতা এবং সার্বভৌমত্বকে বিক্রি করে দিয়েছে। এ দেশের মানুষের মানসম্মান বলে আর কিছু নেই। গতকাল সোমবার সকালে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে বাংলাদেশ সীমান্তে নিরীহ মানুষ হত্যার প্রতিবাদে বিএনপির পূর্বঘোষিত কালো পতাকা ও কালো ব্যাচ ধারণ কর্মসূচিতে তিনি এসব কথা বলেন।

রিজভী অভিযোগ করে বলেন, গত সাড়ে ১২ বছরে সীমান্তে পাঁচ শতাধিক মানুষকে হত্যা করা হয়েছে। কিন্তু সরকার তার নতজানু নীতির কারণে একটা কড়া প্রতিবাদও করতে পারে না। এখানে যদি সত্যিকারের জনগণের সরকার থাকতো, তাহলে এই অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ করতে পারত। যেহেতু এই সরকারের গণভিত্তি নেই তাই তারা অন্য দেশের কাছে নতজানু হয়ে থাকে। নিজের দেশের জনগণের ওপর তারা জুলুম চালায়। তিনি আরও বলেন, যারা সরকারের সমালোচনা করে তাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা দেয়া হয়, কারাগারে নিয়ে যাওয়া হয়। না হয় গুম করে অথবা বিচারবহির্ভূত হত্যার শিকার হতে হয়। অথচ অন্য দেশ এত অন্যায় করছে সেখানে কোনো ধরনের প্রতিবাদ নেই। কোনো ধরনের কূটনৈতিক তৎপরতাও নেই।

কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন- বিএনপির সহ দফতর সম্পাদক মো. মুনির হোসেন, কেন্দ্রীয় নেতা কাজী রওনকুল ইসলাম টিপু, ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির যুগ্ম সম্পাদক এজিএম শামসুল হক, বিএনপি নেতা আহসান ঊদ্দিন খান শিপন, শেখ আবদুল হালিম খোকন, মাহবুব মাসুম শান্ত, এবিএম আবদুর রাজ্জাক, আবদুল আউয়াল, কাজী মনির প্রমুখ।

মন্তব্য করুন: